www.muktobak.com

করোনা দুর্যোগের "অজুহাতে" বন্ধ হচ্ছে আলোকিত বাংলাদেশ


 মুক্তবাক রিপোর্ট    ২ এপ্রিল ২০২০, বৃহস্পতিবার, ১০:৩৬    খবর


করোনার অজুহাতে এবার বন্ধ হতে চলেছে দৈনিক আলোকিত বাংলাদেশ। 

কথা ছিল সাংবাদিক কর্মচারীদের তিন মাসের বেতন বকেয়া ২৫ মার্চের মধ্যে পরিশোধ করার। নির্ধারিত সময়ে বকেয়া বেতন না পেয়ে এক অভিনব প্রতিবাদ চালিয়ে আসছিলেন আলোকিত বাংলাদেশের সাংবাদিক ও কর্মচারীরা। প্রথম পৃষ্ঠায় অষ্টম কলামে দুই ইঞ্চি ফাঁকা জায়গা রেখে সেখানে লেখা হয় "আলোকিত বাংলাদেশ কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সাংবাদিক কর্মচারীদের বকেয়া বেতন পরিশোধ না করার প্রতিবাদে -  সাংবাদিক ও কর্মচারীরা" 

এরমধ্যে বৃহস্পতিবার হুট করে করোনা দুর্যোগের "অজুহাতে" প্রিন্ট ভার্সন বন্ধের ঘোষণা দেয় কর্তৃপক্ষ। এ বিষয়ে পত্রিকাটির অফিসে একটি নোটিশ টানিয়ে দেয়া হয় যাতে বলা হয় করোনা দুর্যোগ পরিস্থিতির কারণে ৪ এপ্রিল থেকে পত্রিকা ছাপা সংস্করণ বন্ধ থাকবে।

অফিস ছাড়াও নোটিশটি সাংবাদিক ও কর্মচারীদের কাছেও পাঠানো হয়েছে। তবে পত্রিকাটির স্থায়ীভাবে বন্ধ হয়ে যাচ্ছে কিনা এ নিয়ে শুরু হয়েছে জল্পনা কল্পনা। সন্দেহ বাড়িয়েছে গণমাধ্যমে পত্রিকাটির হেড অফ ফাইন্যান্সের দেয়া মন্তব্য। জাগোনিউজকে হেড অফ ফাইনান্স জামিল হোসেন বলেছেন, করোনাভাইরাস দুর্যোগের কারণে প্রিন্ট ভার্সন বন্ধ করা হচ্ছে। ৪ এপ্রিল থেকে পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত পত্রিকা বন্ধ থাকবে। সাংবাদিকরা ইচ্ছা করলে অনলাইন ভার্সনে নিউজ দিতে পারবেন। তবে নিউজ দিতেই হবে এমন কোন বাধ্যবাধকতা নেই।

এর আগে মানবজমিন পত্রিকার ছাপা সংস্করণ বন্ধ হলেও পুরোদমে অনলাইন ভার্সন চালানোর ঘোষণা দেয় কর্তৃপক্ষ। শুধু তাই নয়, দ্রুতই ছাপা সংস্করণে ফেরার আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী।

তাই আলোকিত বাংলাদেশ কর্তৃপক্ষের অনলাইন সংস্করণ চালু রাখার ব্যাপারে এমন দায়সারা দৃষ্টিভঙ্গি থেকে মূলত আভাস মেলে হয়তো বন্ধই হয়ে যাচ্ছে পত্রিকাটি। করোনা দুর্যোগে যেখানে মানবিক আচরণ প্রত্যাশা, সেখানে উল্টো পথে পত্রিকাটির মালিকপক্ষ।

উল্লেখ্য সংবাদ কর্মীরা ৩ মাস ধরে বেতন পাননি।




 আরও খবর